ফরেনসিক ল্যাবে মাংস খণ্ডঃ পরীক্ষার পর জানা যাবে এমপি’র কি না

ফরেনসিক ল্যাবে মাংস খণ্ডঃ পরীক্ষার পর জানা যাবে এমপি’র কি না

ঝিনাইদহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজীম আনার ‘হত্যাকাণ্ডের’ তদন্তে নেমে সেপটিক ট্যাংক থেকে উদ্ধার মাংস খণ্ড ফরেনসিক ল্যাবে পাঠানো হয়েছে।

বৃহস্পতিবার ভারতের কেন্দ্রীয় ফরেনসিক ল্যাবে পাঠানো হয় মাংশ খণ্ডটি। পরীক্ষার পর জানা যাবে সেটি এমপি আনারের মরদেহের অংশ কি না।

উদ্ধার মাংস খণ্ড আনারের কি না তা জানতে তার ছোট মেয়ে মুমতারিন ফেরদৌস ডরিন ডিএনএ নমুনা দিতে ভারত যাচ্ছেন। আর ডিবি পুলিশের যে দলটি ভারতে গিয়েছিল, তারা আজ দেশে ফিরছেন। তিন সদস্যের এই দলটি ২৬ মে ভারত যায়।

জানা গেছে, কলকাতার নিউটাউনের সঞ্জীবা গার্ডেনের সেপটিক ট্যাংক থেকে উদ্ধার মাংস খণ্ড এমপি আনোয়ারুল আজীম আনারের কি না, তা পরীক্ষার জন্য ভারতের কেন্দ্রীয় ফরেনসিক ল্যাবে পাঠানো হয়েছে। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ওই ভবনের স্যুয়ারেজ থেকে প্রায় চার কেজি মাংস খণ্ড উদ্ধার করা হয়।

যেগুলো লবণ মিশ্রিত পানিতে সংরক্ষণ করা ছিল। মাংসের টুকরোগুলো দেখতে অনেকটা পাকোড়া’র মতো বলে জানান দেশটির সিআইডি কর্মকর্তারা। এছাড়া মাংসগুলো কসাই জিহাদ ওয়াশরুমের কমোডে ফেলে দিয়েছিলেন বলে আগেই স্বীকার করেছিলেন। জিহাদ (জিহাদ) এখন পুলিশি হেফাজতে আছে।

গত ১২ মে চিকিৎসার জন্য ভারত যান এমপি আনার। পরেরদিন তিনি নিখোঁজ হন। এর নয়দিন পর খবর আসে তাকে হত্যা করে মরদেহ গুম করা হয়েছে। ঘটনার প্রধান মাস্টারমাইন্ড আনারের দীর্ঘদিনের বন্ধু ও ব্যবসায়িক পার্টনার কামরুজ্জামান শাহীন। আনার হত্যায় এক নারীসহ মোট চারজন গ্রেপ্তার হয়েছে।

editor

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *